রায়ে তারা অখুশি না হলেও পুরোপুরি সন্তুষ্টও নয় আওয়ামী লীগ

নিজস্ব প্রতিবেদক : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ২১ আগস্ট চালানো গ্রেনেড হামলার মাস্টারমাইন্ডের সর্বোচ্চ শাস্তি হওয়া উচিত ছিল। তিনি বলেন, বিলম্বিত হলেও এই রায়ে তারা অখুশি নন, পুরোপুরি সন্তুষ্টও নন।

বুধবার আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ২১ আগস্ট চালানো গ্রেনেড হামলা মামলার রায় প্রকাশের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, এই রায়ের পরিকল্পনাকারী ও মাস্টারমাইন্ডের শাস্তি হওয়া উচিত ছিল ক্যাপিটাল পানিশমেন্ট। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এক অনুষ্ঠান শেষে এই প্রতিক্রিয়া দেন ওবায়দুল কাদের।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, এই নৃশংস হত্যাকাণ্ডের প্রধান টার্গেট ছিলেন তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই হামলার মাস্টরমাইন্ড কে তা দেশের জনগণ জানে। বিষয়টি প্রকাশ্য দিবালোকের মতো সত্য।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ওই হামলায় আইভি রহমানসহ মোট ২৪ জনের প্রাণহানি হয়েছে। তখন এফবিআইকে তদন্ত করতে দেয়া হয়নি। স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড ও ইন্টারপোলকে কাজ করতে দেওয়া হয়নি। জজ মিয়া নামক নাটক করা হয়েছে। মুফতি হান্নান স্বীকারোক্তি দিয়েছেন, অপারেশনের পূর্বমুহূর্তে তারেক রহমানের অনুমতি নেয়া হয়েছে। হাওয়া ভবন সে সময় ছিল বিকল্প পাওয়ার হাউস।

বুধবার বিশেষ জজ আদালত-৫-এর বিচারক শাহেদ নূর উদ্দীন ২১ আগস্ট চালানো গ্রেনেড হামলা মামলার রায় দেন। এর মধ্য দিয়ে ১৪ বছর আগে সংঘটিত নৃশংস এই হত্যাকাণ্ডের বিচার বিচারিক আদালতে শেষ হলো। রায়ে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, উপমন্ত্রী আবদুস সালাম পিন্টুসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এই মামলায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, হারিছ চৌধুরী, সাবেক সাংসদ কায়কোবাদসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবন দেয়া হয়েছে।

print