সাংবাদিক হত্যা মামলায় মেয়র মিরু ৫ দিনের রিমান্ডে

Miru.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক : সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সাংবাদিক আবদুল হাকিম হত্যামামলায় পৌর মেয়র হালিমুল হক মিরুসহ ছয়জনের পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। সোমবার শাহজাদপুর বিচারিক হাকিম আদালতের বিচারক হাসিবুল ইসলাম রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

পৌর মেয়র হালিমুল হক মিরুসহ ছয়জনকে আদালতে হাজির করে পুলিশ সাত দিন করে রিমান্ডের আবেদন জানায়। শুনানির পর আদালত প্রত্যেকের জন্য পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করে। এই মামলায় পুলিশ শামীম আলম ও হাবিবুল হক নামের দুজনকেও গ্রেপ্তার দেখিয়ে রিমান্ডে নেয়ার আবেদন জানায়। এ বিষয়ে সোমবার শুনানি হয়নি।

হত্যামামলা ছাড়াও মারধরের ঘটনায় করা আরেকটি মামলায় মেয়র মিরুর দুই ভাই হাসিবুল হক ও হাবিবুল হককে পাঁচ দিন করে রিমান্ডে নেয়ার আবেদন করে পুলিশ। এই দুজনের পক্ষে জামিনের আবেদনও করা হয়। তবে আদালত রিমান্ড ও জামিনের আবেদন দুটিই নাকচ করে দেয়।

৫ ফেব্রুয়ারি রাতে পৌর মেয়রকে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। ৭ ফেব্রুয়ারি তাকে সিরাজগঞ্জের মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে হাজির করা হলে বিচারক মোরসেদ আলম তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহজাদপুর থানার পরিদর্শক দুটি মামলায় মেয়র, তার দুই ভাইসহ আটজনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে আবেদন করেন। পরের দিন বিচারক হাসিবুল ইসলাম এ বিষয়ে শুনানির জন্য সোমবার দিন ধার্য করেন।

শাহজাদপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি বিজয় মাহমুদকে মারধরের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ২ ফেব্রুয়ারি উপজেলা আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় গুলিবিদ্ধ হন দৈনিক সমকালের শাহজাদপুর প্রতিনিধি আবদুল হাকিম শিমুল। পরের দিন চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় নেয়ার পথে শিমুলের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় সাংবাদিক শিমুলের স্ত্রী নুরুন নাহার বেগম একটি হত্যামামলা দায়ের করেন। আর মারধরের ঘটনায় বিজয় মাহমুদের চাচা এরশাদ আলী বাদী হয়ে আরেকটি মামলা করেন।

Share this post

scroll to top