গোপন বিনিয়োগ : প্যরাডাইসে মুসাসহ ২০ বাংলাদেশির নাম

musa-bin-shomser.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক : কর ফাঁকি দিতে ভূমধ্যসাগরীয় মাল্টায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে গোপন বিনিয়োগের নতুন তালিকা প্রকাশ হয়েছে। প্যারাডাইস পেপারসে বুধবার প্রকাশিত এই তালিকায় এবারে আরো অনেক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের পুঁজি পাচারের তথ্য ওঠে এসেছে। যেখানে নতুন করে ২০ জন বাংলাদেশির নাম এসেছে। এদের মধ্যে রয়েছেন কথিত ধনকুবের মুসা বিন শমসেরসহ বিভিন্ন ব্যবসায়ীর নাম।

গোপন বিনিয়োগের খবর ফাঁস করে দেয়া পানামা পেপারস কেলেঙ্কারির রেশ কাটতে না কাটতেই গতবছর সামনে আসে প্যারাডাইস পেপারস কেলেঙ্কারির খবর। সঙ্গে সঙ্গে বেরিয়ে পড়ে বিশ্বের বহু রাঘববোয়ালদের গোপন বিনিয়োগের থলের বেঁড়াল।

প্যারাডাইসে বিশ্বের রাঘববোয়ালদের পাশাপাশি বাংলাদেশিদেরও নাম এসেছিল। ওই তালিকায় ছিলেন ব্যবসায়ী ও বিএনপি নেতা আব্দুল আউয়ার মিন্টুর পরিবারের সব সদস্যসহ অন্তত ১০ জনের নাম।

বুধবার প্যারাডাইস পেপারসে কর ফাঁকি দিয়ে বিনিয়োগ করেছে এমন, এক লাখ ১০ হাজার ব্যক্তি ও ৮৫ হাজার প্রতিষ্ঠানের নাম জুড়ে দেয়া হয়েছে। নতুন এই তালিকায় আছেন বিতর্কিত ব্যবসায়ী মুসা বিন শমসের সহ ২০ বাংলাদেশির নাম।

এই ২০ জন হলেন : জুলফিকার আহমেদ, মোহাম্মদ এ মালেক, শাহনাজ হুদা রাজ্জাক, ইমরান রহমান, মোহাম্মদ এ আওয়াল, আতিকুজ্জামান, তাজুল ইসলাম তাজুন, ফারহান আকিবুর রহমান, আমানুল্লাহ চাগলা, মাহমুদ হোসেন, মোহাম্মদ কামাল ভুইয়া, তুহিন ইসলাম সুমন, মাহতাব রহমান, মো. ফজলে এলাহি চৌধুরী, ইউসুফ খালেক, ফারুক পালোয়ান, খন্দকার আসাদুল ইসলাম। কর ফাঁকি দিতেই উরোপের কর স্বর্গ হিসেবে খ্যাত মাল্টায় এক বা একাধিক প্রতিষ্ঠান খুলে রেখেছেন তালিকায় ওঠে আসা ব্যক্তিরা।

গতবছরের নভেম্বরে প্রকাশিত পানামা পেপারস কেলেঙ্কারিতে নাম এসেছিল ব্রিটেনের রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথ, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পসহ স্বচ্ছ ইমেজের অধিকারী কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর নামও।

কর ফাঁকি দিয়ে গোপন বিনিয়োগের আরো নথি প্রকাশ করবে বলে ঘোষণা দিয়েছে অনুসন্ধানী সাংবাদিকদের আন্তর্জাতিক কনসোরটিয়াম, আইসিআইজে। সেখানে উঠে আসতে পারে আরো নামীদামী ব্যক্তিদের নাম। থাকতে পারে আরো কোন বাংলাদেশি ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের নাম।

Share this post

scroll to top