পুঁজিবাজারে উত্থান অব্যাহত, ঢাকায় বেড়েছে লেনদেন

Dhaka-Stock-Exchange.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক : গেল সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে বড় উত্থান দিয়ে শেষ হয়েছিল ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের লেনদেন। সেই ধারা অব্যাহত রেখে সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসেও উত্থান দিয়ে শেষ হয়েছে দুই বাজারের লেনদেন। সেই সাথে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ। রবিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান সূচক ডিএসইএক্স প্রায় ২৫ পয়েন্ট বেড়ে হয়েছে ৬ হাজার ৩০৬ পয়েন্ট। আর লেনদেনে পরিমাণ বৃহস্পতিবারের তুলনায় প্রায় ২শ কোটি টাকা বেড়ে হয়েছে ৯৭০ কোটি টাকা। ঐদিন ঢাকার বাজারে লেনদেনে পরিমাণ ছিল প্রায় ৭৩৮ কোটি টাকা।

এদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান সূচক সিএসসিএক্স প্রায় ৬২ পয়েন্ট বেড়ে হয়েছে ১১ হাজার ৮৩১ পয়েন্ট। বৃহস্পতিবার এই সূচক ৭০ পয়েন্টের বেশি বেড়ে হয়েছিল ১১ হাজার ৭৬৯ পয়েন্ট। ঐদিন ৬১ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হলেও রবিবার তা ১৫ কোটি টাকার মত কমে হয়েছে ৪৪ কোটি টাকা।

রবিবার লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দাম বাড়ার শীর্ষে ছিল বিদ্যুৎ, ওষুদ, হোটেল, সিএনজি, প্রকৌশল, গ্লাস, ব্যাংক ও আর্থিক খাতের প্রতিষ্ঠান। আর দরপতনে শীর্ষে ছিল সি ফুড, বিদ্যুৎ, আর্থিক প্রতিষ্ঠান, প্লাস্টিক, হাসপাতাল, রসায়ন ও তৈরি পোশাক খাতের প্রতিষ্ঠান। শেয়ার লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠান গুলোর মধ্যে ঢাকায় দাম বেড়েছে ১৩৪টির, কমেছে ১৪৬টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৪টি কোম্পানির শেয়ারের দাম। অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে দাম বেড়েছে ১০৪টির, কমেছে ১০৮টির এবং অপরিবর্তিত আছে ২৬টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম।

রবিবার টাকার অংকে সবচেয়ে বেশি শেয়ার লেনদেন হয়েছে আর্থিক প্রতিষ্ঠান খাতের কোম্পানি লংকা-বাংলা ফাইন্যান্স। এদিন প্রতিষ্ঠানটির ১২০ কোটি টাকার প্রায় ১৮ কোটি শেয়ার হাতবদল হয়েছে। শেয়ারের দাম ৪টাকার বেশি বেড়ে হয়েছে ৬৮ টাকা ২০ পয়সা। সবচেয়ে বেশি সংখ্যক শেয়ার লেনদেনের তালিকাতেও শীর্ষে ছিল লংকা-বাংলা ফাইন্যান্স। এদিন সবচেয়ে বেশি দরপতনের মুখে ছিল জেমিনি সি ফুড। প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারের দাম ৫০ শতাংশের বেশি পড়ে ৯৯৩ টাকা থেকে হয়েছে ৪৮০ টাকা।

দর বৃদ্ধি ও দরপতনে শীর্ষ দশ

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) শেয়ার লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রবিবার দাম বাড়ার শীর্ষে ১০টি প্রতিষ্ঠান ছিল গোল্ডেন ইস্টার্ন ক্যাবলস (৯.৯৮%), ন্যাশনাল টিউবস (৭.৭৫%), ফার্মা এইড (৭.৪১%), ইউনিটক হোটেল (৬.২৯%), নাভানা সিএনজি (৬.২৬%), ওয়িম্যাক্স ইলেকট্রোড (৬.২১%), ওসমানী গ্লাস (৬.০৭%), লংকাবাংলা ফাইন্যান্স (৫.৯%), শাহজালাল ব্যাংক (৪.৭৭%) এবং এটালাস বাংলাদেশ (৪.৬৯%)

এদিন ঢাকায় শেয়ার লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দরপতনে থাকা শীর্ষ ১০টি প্রতিষ্ঠান ছিল জেমিনি সি ফুড (৫১.৬৬%), সাইফ পাওয়ার (২০.৮৮%), অ্যাকটিভ ফাইন্যান্স (১৯.২৪%), এএফসি এগ্রো (১৬.৪৫%), ন্যাশনাল পলিমার (১৫.২৭%), বিবিএস ক্যাবলস (১১.৭৬%), শমরিতা হাসাপাতাল (৮.৮৩%), ফার কেমিক্যালস (৮.২৫%), বেঙ্গল উন্ডসোর থার্মো প্লাস্টিক (৮.০৯%) এবং দেশ গার্মেন্টস (৮.০৮%)

রবিবার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) দাম বাড়ায় শীর্ষে থাকা ১০টি প্রতিষ্ঠান ছিল বিডি ওয়েল্ডিং (১৩.৪৩%), ইস্টার্ন ক্যাবলস (৯.৫৮%), রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্স (৯.৫৬%), নাভানা সিএনজি (৭.২৪%), ওয়িম্যাক্স ইলেকট্রোড (৬.৯৩%), ইউনিক হোটেল (৬.৩%), লংকা-বাংলা ফাইন্যান্স (৫.৭৫%), এলআর গ্লোবাল মিউচ্যুয়াল ফান্ড ১ (৫.৭৪%), ওসমানী গ্লাস (৫.২৬%) ও শাহজালাল ব্যাংক (৫.১১%)

এদিন চট্টগ্রামে শেয়ার লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠান গুলোর মধ্যে দরপতনে থাকা শীর্ষ ১০টি প্রতিষ্ঠান ছিল সাইফ পাওয়ার (২০.৮৪%), অ্যাকটিভ ফাইন্যান্স (১৮.৯১%), এএফসি এগ্রো (১৫.৬৫%), ন্যাশানাল পলিমার (১৪.৯৮%), বিবিএস ক্যাবলস (১১.২৮%), শমরিতা হাসপাতাল (১০.২৭%), এক্সিম ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড (৮.৫৭%), বিবিএস (৭.৬%), ফরচুন সু (৭.৪%) এবং ফার কেমিক্যালস (৭.৩৫%)।

Share this post

scroll to top