টি-টোয়েন্‌টিতে ভালো করার প্রত্যাশা সৌম্যের

স্পোর্টস রিপোর্টার : গত চার বছরে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের তিন ফরম্যাটের ক্রিকেটেই অবিচ্ছেদ্য অংশ ছিলেন বাহাতি ওপেনার সৌম্য সরকার। ফর্মের কারণে চলতি বছর ওয়ানডে ও টেস্ট দল থেকে বাদ পড়েছেন। তবে ফিরেছেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে। টি-টোয়েন্টি একাদশে সুযোগ পেলে ভালো করার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন তিনি।

গত বছরটা ভুলে যেতে চাইবেন বাহাতি ওপেনার সৌম্য সরকার। ব্যাট যে কোনভাবেই তার পক্ষে কথা বলেনি। টেস্ট ও ওয়ানডেতে ছিলেন রানখরা। টি-টোয়েন্টিতে অবশ্য তার ব্যাট ভালোই কথা বলেছিল। টি-টোয়েন্টির হিসেবে দলের অন্য সতীর্থদের চেয়ে তিনিই এগিয়ে থাকবেন। আর সে কারণেই চলতি বছরে জিম্বাবুয়ে ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে ও শ্রীলঙ্কার সাথে টেস্ট সিরিজে সুযোগ না পেলেও টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে নির্বাচকরা তাকে বিবেচনায় রেখেছে।

দলে সুযোগ পেয়ে গত সোমবার গণমাধ্যমের সাথে আলাপকালে সৌম্য বলেন, যতক্ষণ বাইশ গজে ব্যাট হাতে থাকি আত্মবিশ্বাস নিয়েই খেলার চেষ্টা করি। দক্ষিণ আফ্রিকায় যেভাবে ব্যাটিং করেছি শ্রীলঙ্কার সাথে একাদশে সুযোগ পেলে ঠিক একইভাবেই ব্যাটিং করবো। আশা করি এই দুই ম্যাচে ভালো করতে পারবো।

জাতীয় দলের ত্রিদেশীয় ও টেস্ট সিরিজ চলাকালীন সময়ে তিনি কি করেছিলেন তা জানতে চাওয়া হলে সৌম্য বলেন, ফিটনেস নিয়ে কাজ করেছি। এছাড়া প্রিমিয়ার লিগেই বেশি মনোযোগ ছিল। নিজের যে ঘাটতি গুলো রয়েছিল সেসব বিষয় নিয়ে কোচদের সাথে কাজ করেছি, কথা বলেছি।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশ দলে অনেক নতুন মুখ রয়েছে। সে বিষয়ে তার কাছে জানতে চাওয়া হলে, নতুন ফরম্যাট, নতুন ক্রিকেটার। যেহেতু টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট আমার মনে হয় টি-টোয়েন্টিতেই তাদের মনোযোগ বেশি থাকবে। সীমিত ওভারের খেলা। তিন বিভাগে ভালোভাবে পারফর্ম করতে পারলে অবশ্যই ফলাফল আমাদের পক্ষেই কথা বলবে।

scroll to top