পুঁজিবাজারে পতন থামছেই না 

Share-Bazar-08.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক : পুঁজিবাজারে পতন থামছেই না। টানা চার কার্যদিবস পতনের মুখে রয়েছে পুঁজিবাজার। খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক অস্থিরতা না হলেও ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) কৌশলগত মালিকানা নিয়ে চলমান বিতর্কে বিনিয়োগকারীরা কিছুটা আতঙ্কে আছে বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা। যদিও সোমবার ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদ চীনা প্রতিষ্ঠানের কাছেই কৌশলগত মালিকানা বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন অবশ্য নির্ভর করছে বাজার নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) অনুমোদনের উপর।

গেল চার কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে সূচক পড়েছে ১৪১ পয়েন্ট। ডিএসইর প্রধান সূচক ৬ হাজার ৫০ থেকে মঙ্গলবার ৫ হাজার ৯০৯। এদিন ঢাকায় সূচক পড়েছে ৩১ পয়েন্টের বেশি। ঢাকায় সূচক পতনের পাশাপাশি লেনদেনেও কমে এসেছে। গেল বৃহস্পতিবার ৫শ কোটি টাকার বেশি শেয়ার লেনদেন হলেও মঙ্গলবার তা নেমে এসেছে ৩৯১ কোটি টাকায়। এদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে গেল চার কার্যদিবসে সূচক পড়েছে ২৮০ পয়েন্ট। বৃহস্পতিবার সিএসইর প্রধান সূচক সিএসিএক্স ১১ হাজার ২৯৭ পয়েন্ট থেকে নেমে এসেছে ১১ হাজার ১৭ পয়েন্টে। মঙ্গলবার এই সূচক পড়েছে ৬৫ পয়েন্ট। লেনদেন হয়েছে ৫১ কোটি টাকার বেশি।

মঙ্গলবার শেয়ার লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানের দাম কমেছে। ঢাকায় লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ৯০টির, কমেছে ১৯১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম। অন্যদিকে শেয়ার হাতবদল হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে দাম বেড়েছে ৫৮টির,কমেছে ১৩৭টির এবং অপরিবর্তিত আছে ৩৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম। এদিন টাকার অংকে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি শেয়ার লেনদেন হয়েছে ইউনিক হোটেলের। প্রতিষ্ঠানটির ৪৪ লাখ শেয়ার প্রায় ২৮ কোটি টাকায় হাতবদল হয়েছে।

দর বৃদ্ধি ও দরপতনে শীর্ষ দশ: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) শেয়ার লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে মঙ্গলবার দাম বাড়ার শীর্ষে ১০টি প্রতিষ্ঠান ছিল রিনউইক (৭.৩৪%), অ্যাপেক্স ফুডস (৬.১%), অ্যাপেক্স স্পিনিং (৪.৬৩%), তাকাফুল ইন্স্যুরেন্স (৪.৬৩%), ফার্মা এইড (৪.২৫%), কোহিনূর কেমিক্যালস (৪.১৯%), হাওয়েল টেক্স (৪.০১%), আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ (৩.৯৫%), এআইবিএল ফার্স্ট ইসলামিক মিউচ্যুয়াল ফান্ড (৩.৭%) এবং অ্যাপেক্স ফুটওয়্যার (৩.২৪%)

এদিন ঢাকায় শেয়ার লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দরপতনে থাকা শীর্ষ ১০টি প্রতিষ্ঠান ছিল আরএকে সিরামিক (১১.১৫%), বঙ্গজ (৮.৫৮%), ফাইন ফুডস (৫.৮৫%), সোনারগাঁও টেক্সটাইল (৫.৮৩%), সাভার রিফ্যাক্টরিজ (৫.৭৮%), ইনফরমেশন টেকনোলজি লি. (৪.৭৮%), অগ্নি সিস্টেমস (৪.৭৪%), ইস্টার্ন ক্যাবলস (৪.৫৮%), মেঘনা কনডেন্সড মিল্ক (৪.৫৭%) ও ফুওয়াং ফুড (৪.২৮%)

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) দাম বাড়ায় শীর্ষে থাকা ১০টি প্রতিষ্ঠান ছিল এএফসি এগ্রো (৮.৩৩%), কেএওয়াই এন্ড কিউইউই (৭.০৮%), অ্যাপেক্স ফুডস (৬.৫৪%), বিডি ল্যাম্পস (৬.০১%), অ্যাপেক্স স্পিনিং (৫.৮৩%), আম্বি ফার্মা (৪.৩৯%), বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স (৪.০৪%), জিকিউ বলপেন (৩.৮৫%), ডাচবাংলা ব্যাংক (৩.৮১%) ও বাটা সু (৩.৬১%)

এদিন চট্টগ্রামে শেয়ার লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠান গুলোর মধ্যে দরপতনে থাকা শীর্ষ ১০টি প্রতিষ্ঠান ছিল আরএকে সিরামিক (১০.৮৬%), বঙ্গজ (৮.১৪%), রূপালী ইন্স্যুরেন্স (৭.৪২%), ফাইন ফুডস (৬.৭৪%), ইসলামী ইন্স্যুরেন্স (৬.২২%), প্রাইম ফাইন্যান্স (৫.২১%), গ্রিণডেন্টা ইন্স্যুরেন্স (৫.১৪%), বার্জার পেইন্ট (৫%), স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স (৫%) ও ইনফরমেশন টেকনোলজি লি. (৪.৭৮%)।

Share this post

scroll to top