বেইজিং কার্যালয় বন্ধ করছে ইয়াহু

Yahoo-05.jpg

চীনে কর্মী ছাঁটাইয়ের পাশাপাশি বেইজিং কার্যালয় বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে শীর্ষস্থানীয় সার্চ ইঞ্জিন ইয়াহু। এতে ২০০-৩০০ কর্মী চাকরি হারাতে পারেন। সংবাদ মাধ্যম ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনে কার্যালয় বন্ধের বিষয়টি প্রথম প্রকাশ করা হয়। খবর এএফপি।

সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তার উদ্ধৃতি দিয়ে ব্লুমবার্গ জানায়, ব্যবসা প্রসারের কৌশলগত কারণে বেইজিং কারখানা বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইয়াহু। এছাড়া চীনে নিজেদের কর্মী বাহিনীকেও নতুন করে সাজাতে কাজ করছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। প্রতিষ্ঠানটির এ সিদ্ধান্তের কারণে দেশটিতে কমপক্ষে ২০০ কর্মী ছাঁটাই করা হতে পারে। যদিও এ বিষয়ে ইয়াহুর পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রতিষ্ঠানটির বেইজিং কার্যালয় থেকে স্থানীয় বাজারে কোনো পণ্য বা সেবা সরবরাহ করা হয় না। এটি মূলত গবেষণা এবং উন্নয়ন কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহূত হয়ে আসছে। গত জানুয়ারিতে চীনে বেশ কয়েকটি সেবা বন্ধের পাশাপাশি দেশটির ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আলিবাবার শেয়ার তুলে নেয়ার ঘোষণা দেয় ইয়াহু। ওই পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই এবার কার্যালয় বন্ধের ঘোষণা দিল মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি।

বিশ্লেষকদের মতে, কঠোর অনলাইন নীতিমালার কারণে চীনে ব্যবসা প্রসারে বিভিন্ন ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় মার্কিন প্রতিষ্ঠানগুলোকে। মাইক্রোসফট, গুগলসহ শীর্ষ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের বেশকিছু সেবার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে দেশটির সরকার। কিন্তু বিপুল জনসংখ্যার কারণে প্রায় সব প্রযুক্তি কোম্পানিই দেশটির বাজার ধরতে চায়। এরই ধারাবাহিকতায় ২০০৫ সালে আলিবাবার ৪০ শতাংশ শেয়ার কিনে নেয় ইয়াহু। এজন্য প্রতিষ্ঠানটিকে গুনতে হয়েছিল ১০০ কোটি ডলার।

Share this post

scroll to top